মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

চাকামইয়া ইউনিয়নের ইতিহাস

কালেরসাক্ষ্য বহনকারী বাংলাদেশের সর্ব দক্ষিণে অবস্থিত সাগর কন্যা পটুয়াখালী জেলার আন্ধার মানিক নদীরতীরে গড়ে  উঠা কলাপড়া উপজেলার একটি ঐতিহ্যবাহী ইউনিয়ন হলো চাকামইয়া ইউনিয়ন ।কাল পরিক্রমায় আজ চাকামইয়া ইউনিয়ন শিক্ষা, সংস্কৃতি, ধর্মীয় অনুষ্ঠান, খেলাধুলা সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তার নিজস্ব স্বকীয়তায় সমুজ্জল। ২১টি গ্রাম নিয়ে চাকামইয়া ইউনিয়ন গঠিত হয়। ঐ সময়ে ইউনিয়ন এর চেয়ারম্যান কে গ্রাম প্রেসিডেন্ট বলা হত। ১৯৫০ সালে পাকিস্তান শাসনামলে গ্রাম প্রেসিডেন্ট এর পদকে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পদবী ঘোষণা করা হয়। চাকামইয়া ইউনিয়নের প্রথম চেয়ারম্যান ছিলেন জনাব আঃ কাদের তালুকদার। তিনি চাকামইয়া ইউনিয়নের উন্নয়নের জন্য এবং চাকামইয়া মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করার জন্য আজীবন সংগ্রাম করে মৃত্যু বরন করেন। এর পর দ্বিতীয় চেয়ারম্যান  জনাব, মোঃ জেন্নাত আলী তালুকদার সাহেব চাকামইয়ার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন এবং চাকামইয়াকে সাজানোর চেষ্টা করেন। । স্বাধীনতা পরবর্তী প্রথম নির্বাচিত চেয়ারম্যান জনাব মোঃ সফিজ উদ্দিন তালুকদার সাহেব। তিনি খুব ভাল মানুষ ছিলেন এবং মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি চাকামইয়াবাসির ভাগ্যের উন্নয়নের জন্য কাজ করে গেছেন । দ্বিতীয় চেয়ারম্যান জনাব আঃ রশিদ তালুকদার, তৃতীয় জনাব মোঃ তোফাজ্জেল হোসেন হাওলাদার, চতুর্থ জনাব নুর মোহাম্মাদ হাওলাদার (নুরু ফকির) তিনি এ যাবত কালের সব চেয়ে জনপ্রিয় চেয়ারম্যান ছিলেন। তার মৃত্যুর পর তার প্রথম পুত্র জনাব মোঃ মোতালেব হোসেন হাওলাদার এবং তার পরবর্তীতে তার পঞ্চম পত্র জনাব মোঃ মজিবর রহমান চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। বর্তমানে সাবেক চেয়ারম্যান জনাব মোঃ তোফাজ্জেল হোসেন হাওলাদারের ভাতিজা জনাব মোঃ হুমায়ন কবির (কেরামত) হাওলাদার চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।


Share with :

Facebook Twitter